সোমবার   ০৬ এপ্রিল ২০২০   চৈত্র ২৩ ১৪২৬   ১২ শা'বান ১৪৪১

  যশোরের আলো
১৭

কিডনির পাথর দূর করে বেদানার জুস

লাইফস্টাইল ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৭ মার্চ ২০২০  

কিডনিতে পাথর জমা এখন একটি স্বাভাবিক রোগে পরিণত হয়েছে। নিম্নলিখিত টোটকায় পেতে পারেন এই সমস্যা থেকে মুক্তি।

১. কিডনিতে পাথর জমার অন্যতম কারণ পর্যাপ্ত পানি পান না করা। এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে দৈনিক ৮ গ্লাস পানি পান করতে হবে। পানি শরীর থেকে বিষাক্ত উপাদান দূর করতে সহায়তা করে এবং কিডনিতে পাথর জমতে দেয় না।

রাজমা:

রাজমা বা কিডনি বিনস প্রোটিনে ভরপুর। এতে প্রচুর আঁশ থাকার কারণে হজম স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। এতে প্রয়োজনীয় মিনারেল রয়েছে যা কোলেস্টেরলের পরিমাণ কম এবং ওজন কমাতে সহায়তা করে। এতে ভিটামিন বি রয়েছে যা পাথর দূর করে এবং কিডনির কার্যক্রম সচল রাখতে সহায়তা করে।

আপেল সিডার ভিনেগার:

এতে অ্যাসেটিক অ্যাসিড এবং ভিটামিন বি এবং সির মতো প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান রয়েছে। আপেল সিডার ভিনেগারে থাকা সাইট্রিক অ্যাসিড কিডনির পাথর দূর করে। নিয়মিত আপেল সিডার ভিনেগার খেলে ক্ষতিকর উপাদান দূর করে কিডনি সুরক্ষিত রাখে।

লেবু ও মধু পানি: 

টক-মিষ্টি এই মিশ্রণটি খুবই স্বাস্থ্যকর। লেবু কিডনির পাথর অপসারণে সহায়তা করে। ৫-৬ গ্লাস লেবুর জুসের সঙ্গে কয়েক চামচ মধু পাথর অপসারণে এবং ব্যথা উপশমে দ্রুত কাজ করে।

বেদানার জুস: 

আঁশ, ভিটামিন বি, ভিটামিন সি, ভিটামিন কে এবং পটাশিয়ামের ভালো উৎস। অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের ভালো উৎস এই ফল কিডনির স্বাস্থ্য সুরক্ষা করে এবং পটাশিয়াম কিডনিতে পাথর জমতে দেয় না।

তুলসির জুস: 

বিভিন্ন মৌসুমী রোগ সারাতে তুলসীর জুড়ি নাই। এটি শরীরকে শক্তিশালী করে এবং বিভিন্ন রোগ থেকে মুক্তি দেয়। কিডনির পাথরের চিকিৎসায় তুলসি মহৌষধ হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে। এটি কিডনিতে বিভিন্ন তরল, খনিজ উপাদান এবং ইউরিক অ্যাসিডের ভারসাম্য বজায় রাখতে সহায়তা করে।

  যশোরের আলো
  যশোরের আলো