বুধবার   ১৯ জুন ২০২৪   আষাঢ় ৪ ১৪৩১   ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

  যশোরের আলো
সর্বশেষ:
সেন্টমার্টিনে বিজিবি ও পুলিশকে সতর্ক থাকার নির্দেশ বাংলাদেশকে সুপার এইটে তুললো বোলাররা দলীয় নেতাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী চামড়া কেনায় ট্যানারি মালিকরা ২৭০ কোটি টাকা ঋণ পাচ্ছে
২৬

টি ব্যাগের চা পান করা কি ভালো?

লাইফস্টাইল ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১ জুন ২০২৪  

গরম পানিতে চায়ের টি ব্যাগ ডুবিয়ে দিলেই মুহূর্তেই তৈরি লিকার বা রং চা। তবে টি ব্যাগের চা পান করা কি আদৌ শরীরের জন্য ভালো? চলুন জেনে নেওয়া যাক-

মাইক্রোপ্লাস্টিকের বিপদ

কিছু টি ব্যাগ নাইলন বা পিইটি দিয়ে তৈরি হয়। গরম পানি বা দুধের মধ্যে যখন এটি চোবানো হয়, তখন কিছু প্লাস্টিক চায়ের মধ্যে মিশে যায়। যা নানা রোগের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়।

ফ্লুরাইড থেকে ক্ষতি

গ্রিন টি’র পাতার মধ্যে মাটি থেকে ফ্লুরাইড আসে। তাই এই পাতাগুলো বিশেষভাবে প্রক্রিয়াজাত করা হয়। তবে টি ব্যাগের মধ্যে ফ্লুরাইড থেকে যেতে পারে। যা বেশি মাত্রায় শরীরে গেলে ফ্লুরোসিস, হাড় নষ্ট হয়ে যাওয়া, ক্লান্তি, অস্টিয়োপোরোসিস, জয়েন্টের ব্যথা দেখা দিতে পারে।

কীটনাশকের ভয়

চা পাতা তুলে টি ব্যাগে ভরার সময় তাতে কীটনাশক থেকে যেতে পারে। এই কীটনাশক থেকেও স্বাস্থ্যের একাধিক ক্ষতি হতে পারে। পেটের রোগ ছাড়াও লিভার ও কিডনির রোগ হতে পারে।

অ্যালুমিনিয়াম ধাতুর বিপদ

টি ব্যাগ সাধারণত অনেক দিন পর্যন্ত থাকে। দীর্ঘদিন টাটকা রাখার জন্য টি ব্যাগে অ্যালুমিনিয়াম যৌগ মেশানো হয়। এই ধাতু থেকে শরীরের একাধিক ক্ষতি হতে পারে। মস্তিষ্কের কঠিন রোগ অ্যালঝাইমার্স ডিজিজও হতে পারে।

ক্য়ানসারের ঝুঁকিও আছে

অ্যালুমিনিয়াম ধাতুর এই যৌগ কারসিনোজেন, যার থেকে ক্য়ানসারের ঝুঁকি বেড়ে যেতে পারে।

সম্প্রতি প্লাইমাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষণায় দেখা গেছে, টি ব্যাগ পরিবেশের জন্যও ক্ষতিকর। কারণ জৈব পচনশীল বা বায়োডিগ্রেডেবল নামে যে টি ব্য়াগগুলো বানানো হয়, সেগুলোর মধ্যে অপচনশীল ব্যাগের সংখ্যা বেশি। সেগুলো মাটির মধ্যে পড়লে মিশে যায় না, বরং দূষণ ঘটায়। জলপ্রবাহে মিশে গেলে তা থেকে জলজ প্রাণীদেরও ক্ষতি হতে পারে।

সূত্র: এবিপি নিউজ

  যশোরের আলো
  যশোরের আলো