শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২   আষাঢ় ১৭ ১৪২৯   ০১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

  যশোরের আলো
সর্বশেষ:
১৬ লাখ পথশিশুকে জন্মনিবন্ধন সনদ দিতে হাইকোর্টের রুল ই-গেটের মাধ্যমে মিনিটেই ইমিগ্রেশন পার জঙ্গিরা কোণঠাসা, ‘বাংলাদেশ’ দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে নিরাপদ বিসিক যশোরের ৩০জন প্রশিক্ষণার্থীর মাঝে সনদ বাঘারপাড়া পৌরসভায় প্রায় ২০ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা
৪৮

দেশে ফিরলেন ভারতে নির্যাতনের শিকার সেই তরুণী

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২২ মে ২০২২  

ভালো কাজের প্রলোভনে ভারতের বেঙ্গালুরুতে গিয়ে গণধর্ষণ ও নির্যাতনের শিকার ভুক্তভোগী সেই তরুণী দেশে ফিরেছেন। শনিবার (২১ মে) সন্ধ্যায় বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে দেশে ফেরেন ওই তরুণীসহ আরও চারজন।

স্বদেশ প্রত্যাবাসন আইনে ভারতীয় পুলিশ আনুষ্ঠানিকভাবে তাদেরকে বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করে।

পরে ওই তরুণীর জবানবন্দি নেওয়ার জন্য ঢাকা হাতিরঝিল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মেজবাউদ্দীন তাকে হেফাজতে  নিয়েছেন। অন্য চার তরুণীকে আইনি সহয়তা দিতে বেসরকারি সংস্থ্যা জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ারের যশোর শাখা অফিস তাদের গ্রহণ করেছে।

বেনাপোল বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন ভূইয়া জানান, ভারতে পাচার হওয়া পাঁচ তরুণীকে স্বদেশ প্রত্যাবাসন আইনে ভারতীয় পুলিশ শনিবার সন্ধ্যায় বেনাপোল বন্দর দিয়ে বাংলাদেশে ফেরত পাঠিয়েছে। এর মধ্যে মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে এক তরুণীকে হাতিরঝিল থানা পুলিশ গ্রহণ করেছে। বাকি চার তরুনীকে আইনি সহয়তা দিতে একটি এনজিওর কর্মকর্তারা গ্রহণ করেছেন।

এদিকে ওই তরুণীকে পাচার ও গণধর্ষণের অভিযোগে নয় বাংলাদেশিকে বিভিন্ন মেয়াদে দণ্ড দেওয়া হয়েছে। ভারতের বেঙ্গালুরুর একটি বিশেষ আদালত এ দণ্ডাদেশ দেন।

রায়ে বাংলাদেশের নাগরিক চাঁদ মিয়া, মোহাম্মদ রিফাকদুল ইসলাম, মোহাম্মদ আলামিন হোসেন, রকিবুল ইসলাম, মোহাম্মদ বাবু শেখ, মোহাম্মদ ডালিম ও আজিম হোসেনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন আদালত। এ কাজে সহযোগিতার অভিযোগে তানিয়া খানকে ২০ বছর এবং মোহাম্মদ জামালকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এ ছাড়া অপর দুই বাংলাদেশিকে ফরেনার্স অ্যাক্টের অপরাধে দোষী সাব্যস্ত করে ৯ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

তবে এ মামলায় এক ভারতীয় নাগরিককে অভিযুক্ত করা হলেও তাকে অভিযোগ থেকে খালাস দিয়েছেন আদালত।

গত বছরের ২৭ মে ধর্ষণ ও নির্যাতনের পর ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় রাজধানীর হাতিরঝিল থানায় মানবপাচার আইনে মামলা করেন ভুক্তভোগী তরুণীর বাবা।

  যশোরের আলো
  যশোরের আলো
এই বিভাগের আরো খবর