মঙ্গলবার   ২৫ জুন ২০২৪   আষাঢ় ১০ ১৪৩১   ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

  যশোরের আলো
সর্বশেষ:
নতুন প্রজন্মই স্মার্ট বাংলাদেশকে এগিয়ে নেবে: প্রধানমন্ত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ে নিজস্ব র‌্যাংকিং চালু করার পরামর্শ শিক্ষামন্ত্রী বাঙালির সব অর্জনই এসেছে আওয়ামী লীগের হাত ধরে তরুণ প্রজন্মকে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্ব অনুসরণের আহ্বান মাশরাফির শিখা অনির্বাণে নবনিযুক্ত সেনাপ্রধানের শ্রদ্ধা দেশে তৈরি পোশাক খাতে নারী শ্রমিক ২৭ লাখের বেশি ৮ জুলাই চীন সফরে যেতে পারেন প্রধানমন্ত্রী
৫৩

পাকিস্তানি রুপি নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে তালেবান

প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

আফগানি রুপির ব্যবহার বাড়াতে দেশের দক্ষিনাঞ্চলে পাকিস্তানি রুপি ব্যবহার নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে তালেবান সরকার। 

আফগানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম খামা প্রেসের বরাতে ইন্ডিয়ান টাইমস জানিয়েছে, আফগানিস্তানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক গত সপ্তাহ থেকে দেশটির দক্ষিনাঞ্চলে আফগানি রুপির ব্যবহার বাড়াতে চাইছে। তাই পাকিস্তানি রুপিসহ বিদেশি মুদ্রায় ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধের পদক্ষেপ নিচ্ছে তালেবান সরকার।  

খবরে বলা হয়, দেশটির দক্ষিনাঞ্চলীয় বাসিন্দাদের বিশেষ করে কান্দাহার, উরুযগান, হেলমান্দ, জাবুল, ও দায়কুন্দি প্রদেশের বাসিন্দাদের পাকিস্তানি রুপিতে ব্যবসা না করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। শিগগিরই আফগানি মুদ্রায় ব্যবসা পরিচালনার নির্দেশ জারি করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার।  

এ ক্ষেত্রে তাদের জন্য নির্দিষ্ট একটি সময়সীমাও বেধে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে খামা প্রেস।  বাসিন্দাদের আফগানি মুদ্রা ব্যবহার করে তাদের বাণিজ্যিক লেনদেন পরিচালনা করার জন্য আড়াই মাস সময় দেওয়া হয়েছে। 

কেন্দ্রীয় ব্যাংক আরো জানায়, সময়সীমা শেষ হওয়ার পর বিদেশি মুদ্রায় বিনিয়োগ অবৈধ বলে বিবেচিত হবে এবং যারাই বিদেশি মুদ্রায় ব্যবসা বানিজ্য পরিচালনা করবে তাদের আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, তালেবান সরকারের সঙ্গে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর গোলাগুলির পর প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যকার তোরখাম সীমান্ত ক্রসিং গত বুধবার থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এর ফলে পণ্য বোঝাই শত শত ট্রাক এবং হাজার হাজার যাত্রী আটকা পড়েছে।

তালেবান সরকার একটি ‘বেআইনি কাঠামো’ নির্মাণের মাধ্যমে তার ভূখণ্ড দখলের চেষ্টা করছে বলে সোমবার জানিয়েছে পাকিস্তান। পাশাপাশি আফগান বাহিনীকে গত সপ্তাহে প্রধান সীমান্ত ট্রানজিট পয়েন্ট বন্ধ করার ঘটনায় ‘নির্বিচারে গুলি চালানোর’ অভিযোগ করেছে।

প্রতিদিন পাকিস্তান থেকে মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার পাচার হয় আফগানিস্তানে। এতে কিছুটা সহায়তা পায় আফগানিস্তানের তালেবান সরকারের অর্থনীতি। 

অন্যদিকে এমনিতেই অর্থনৈতিক সংকটে থাকা পাকিস্তান থেকে বিপুল পরিমাণ ডলার পাচার হয়ে যাওয়ায় ইসলামাবাদের সংকট আরও তীব্র হচ্ছে। 

  যশোরের আলো
  যশোরের আলো
এই বিভাগের আরো খবর