মঙ্গলবার   ০২ জুন ২০২০   জ্যৈষ্ঠ ১৯ ১৪২৭   ১০ শাওয়াল ১৪৪১

  যশোরের আলো
২৪৩

বিরল প্রজাতির বিদেশি পাখি উদ্ধার, আটক ৪

প্রকাশিত: ১৯ নভেম্বর ২০১৮  

আন্তর্জাতিক বন্যপ্রাণী পাচারকারী চক্রের ৪ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব। এ সময় তাদের কাছ থেকে আমদানি নিষিদ্ধ বিরল প্রজাতির ২টি টোকান পাখি ও ১টি ইকলেকটাস প্যারোট পাখি উদ্ধার করা হয়েছে।


র‌্যাব-১১ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক মো. জসিম উদ্দিন চৌধুরী রোববার বিকেলে এ তথ্য জানান। শনিবার বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত রাজধানীর উত্তরা থেকে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।


আটকরা হলেন মো. জাহিদুল হাসান (৩২), খন্দকার বুলবুল ইসলাম (৩৪), রফিকুল ইসলাম (৪১) ও মো. মাসুদুর রহমান (২৯)।


মো. জসিম উদ্দিন চৌধুরী জানান, গোপন সংবাদে অভিযান চালিয়ে আন্তর্জাতিক বণ্যপ্রাণী পাচারকারী ৪ জনকে আটক করা হয়। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হওয়া ২টি টোকান পাখীর মূল্য ৩০ লাখ টাকা ও ইকলেকটাস পাখির মূল্য ১ লাখ টাকা।


তিনি আরো জানান, গেল ১৪ জুন নারায়নগঞ্জের ফতুল্লা থেকে ২টি চিতা বাঘসহ এ চক্রের মো. আরিফুল ইসলাম ও মো. শওকত ইমরান ওরফে মিঠুকে আটক করা হয়। আটক দুজন তারিকুল ইসলাম নামে তাদের এক সহযোগীর কথা জানায়।


তিনি জানান, ১ নভেম্বর ধানমন্ডিতে অভিযান চালিয়ে তারিকুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তারিকুল আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী প্রদান করে। জবানবন্দীতে সে আন্তর্জাতিক বণ্যপ্রাণী পাচার চক্রের অনেকের নাম জানায়। তার দেয়া তথ্যে এ চার জনকে আটক করা হয়।


সি.সহকারী পরিচালক জানান, জিজ্ঞাসাবাদে ও অনুসন্ধানে জানা গেছে, দীর্ঘদিন যাবৎ পাচারকারী চক্র বিদেশ থেকে পশুপাখি আমদানি করার আড়ালে সিএন্ডএফ এজেন্টেদের সঙ্গে মিলে আমদানি নিষিদ্ধ বিরল প্রজাতির পশুপাখি আমদানি করে। পরে পাশের দেশগুলোতে পাচার করে আসছে। গেল ৮ মে যশোর থেকে উদ্ধার করা ৯টি জেব্রা সিএন্ডএফ এজেন্ট গ্রেফতার রফিকের সহায়তায় বিমানবন্দর থেকে ছাড় করিয়েছিল এ চক্র।


উদ্ধার করা ২টি টোকান পাখি ও ১টি ইকলেকটাস পাখি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্ক গাজীপুরে সংরক্ষণের জন্য হস্তান্তর করা হয়েছে বলে তিনি জানান।


 

  যশোরের আলো
  যশোরের আলো
এই বিভাগের আরো খবর