বুধবার   ১৯ জুন ২০২৪   আষাঢ় ৪ ১৪৩১   ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

  যশোরের আলো
সর্বশেষ:
সেন্টমার্টিনে বিজিবি ও পুলিশকে সতর্ক থাকার নির্দেশ বাংলাদেশকে সুপার এইটে তুললো বোলাররা দলীয় নেতাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী চামড়া কেনায় ট্যানারি মালিকরা ২৭০ কোটি টাকা ঋণ পাচ্ছে
৭১

যশোরে স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৫ মে ২০২৩  

যশোর শহরতলীর আরবপুর মাঠপাড়ার গৃহবধূ শিরিনা বেগমকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে তার স্বামী জুয়েল সরদারকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার (২৪ মে) নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক গোলাম কবির এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত জুয়েল সরদার আরবপুর মাঠপাড়ার মৃত মিজানুর রহমানের ছেলে। আদালতের বিশেষ পিপি সেতারা খাতুন রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, জুয়েল সরদার খয়েরতলার ভৈরব ফিলিং স্টেশনে সেলসম্যান হিসেবে চাকরি করতেন। জুয়েলের প্রথম স্ত্রী মারা যাওয়ার পর পারিবারিকভাবে শিরিনা বেগমকে বিয়ে করেন। প্রথম পক্ষের দুই সন্তান ও শিরিনার নিজের সন্তানের দেখাশোনা নিয়ে প্রায়ই তাদের মনোমালিন্য হতো। ২০২১ সালের ১২ অক্টোবর একই বিষয়ে তাদের বাগবিতণ্ডা হয়।

একপর্যায়ে স্ত্রী শিরিনাকে মারপিট করে ঘরের মধ্যে ফেলে দেন জুয়েল সরদার। পরে পানির বোতলে রাখা পেট্রোল তার গায়ে ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। প্রতিবেশীরা ধোঁয়া বের হতে দেখে ঘরে ঢুকে দেখেন শিরিনার গায়ে আগুন জ্বলছে। পরে পানি ঢেলে তারা আগুন নেভান। গুরুতর দগ্ধ অবস্থায় শিরিনাকে প্রথমে যশোর, পরে খুলনা এবং রাতে ঢাকা নেওয়ার পথে মারা যান।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা জুয়েলকে আসামি করে কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন। মামলার তদন্ত শেষে জুয়েল সরদারকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা।

মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামি জুয়েল সরদারের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও চারমাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন।

  যশোরের আলো
  যশোরের আলো
এই বিভাগের আরো খবর