বুধবার   ১৯ জুন ২০২৪   আষাঢ় ৬ ১৪৩১   ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

  যশোরের আলো
সর্বশেষ:
সেন্টমার্টিনে বিজিবি ও পুলিশকে সতর্ক থাকার নির্দেশ বাংলাদেশকে সুপার এইটে তুললো বোলাররা দলীয় নেতাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী চামড়া কেনায় ট্যানারি মালিকরা ২৭০ কোটি টাকা ঋণ পাচ্ছে
৪৬

যে রস সকালে খেলে দূর হবে ইউরিক অ্যাসিড

লাইফস্টাইল ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১ জুন ২০২৪  

ইউরিক অ্যাসিডের যন্ত্রণা ভোগ করেই অনেককে দিন কাটাতে হয়। গাঁটে ব্যথা, ফুলে যাওয়ার নিতে করতে হয় কাজ। বিশ্বের প্রায় সাড়ে ৪ কোটি মানুষ ইউরিক অ্যাসিডের সমস্যায় ভুগছেন। ব্যথার জেরে অনেকে শয্যাশায়ীও হয়ে যান। খাওয়া-দাওয়ার মাধ্যমে একে নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।

ইউরিক অ্যাসিডের সমস্যা থাকলে কিছু খাবার থেকে মুখ ফিরিয়েই থাকতে হবে। আবার কিছু খাবার খেলে ইউরিক অ্যাসিড চট করে বাড়তে পারবে না। সেরকমই কিছু পানীয়র কথা জেনে নেওয়া যাক। যা রোজ সকালে নিয়মিত খেলে ইউরিক অ্যাসিডকে জব্দ করা যাবে। তা ব্যথার কারণ হয়ে উঠতে পারবে না।

ইউরিক অ্যাসিড মূত্রে স্বাভাবিক উপাদান। কিন্তু অতিরিক্ত প্রোটিন খেলে ইউরিক অ্যাসিডের পরিমাণ বেড়ে যায়। রোজ সকালে গরম জলে লেবুর রস মিশিয়ে খেলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি মিলতে পারে। ভিটামিন সি অ্যাসিডের মাত্রা নিয়ন্ত্রণের কাজ করে।

আয়ুর্বেদে আমলকি মহৌষধি। এই আমলকির রস রোজ খেলে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা কমে। এক গ্লাস উষ্ণ পানিতে আমলকির রস মিশিয়ে রোজ সকালে খান।

এক গ্লাস কুসুম গরম পানিতে ১ চা চামচ করে মধু ও ভিনিগার মিশিয়ে খেতে পারেন। অতিরিক্ত ওজন কমাতে সাহায্য করে অ্যাপল সাইডার ভিনিগার। ইউরিক অ্যাসিডও কমাতে সাহায্য করে।

ধনে ভেজানো পানিও এ কাজে দারুণ কার্যকরী। এই পানীয় কিন্তু ক্যালোরি পোড়াতে দারুণ কাজ করে। ফলে শরীরে বাড়তি মেদ জমতে পারে না। ইউরিক অ্যাসিড নিয়ন্ত্রণে রাখতেও দারুণ উপকারী।

  যশোরের আলো
  যশোরের আলো