শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২   আষাঢ় ১৭ ১৪২৯   ০১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

  যশোরের আলো
সর্বশেষ:
১৬ লাখ পথশিশুকে জন্মনিবন্ধন সনদ দিতে হাইকোর্টের রুল ই-গেটের মাধ্যমে মিনিটেই ইমিগ্রেশন পার জঙ্গিরা কোণঠাসা, ‘বাংলাদেশ’ দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে নিরাপদ বিসিক যশোরের ৩০জন প্রশিক্ষণার্থীর মাঝে সনদ বাঘারপাড়া পৌরসভায় প্রায় ২০ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা
২৯

৩০ বছর পর অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে শ্রীলঙ্কার ওয়ানডে সিরিজ জয়

প্রকাশিত: ২২ জুন ২০২২  

চারিথ আসালঙ্কার সেঞ্চুরিতে এক ম্যাচ হাতে রেখেই ৩০ বছর পর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জিতলো শ্রীলঙ্কা। চতুর্থ ওয়ানডেতে লঙ্কানদের জয় ৪ রানে।

মঙ্গলবার (২১ জুন) কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নামে স্বাগতিকরা। স্পিন সহায়ক উইকেটে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়া লঙ্কানদের টেনে তোলেন চারিথ আসালাঙ্কা। পাঁচ নম্বরে নেমে খেলেন ১১০ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস। সেই সঙ্গে ধনাঞ্জয়ার ৬০ রানের সুবাদে ২৫৮ রান তোলে স্বাগতিকরা।

লঙ্কানদের দেয়া ২৫৯ রান তাড়া করতে নেমে অস্ট্রেলিয়াকে একাই টানতে থাকেন ডেভিড ওয়ার্নার। কিন্তু সেঞ্চুরি থেকে এক রান দূরে থাকতে ডি সিলভার বলে স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার হন ওয়ার্নার। তার আগে অবশ্য ১১২ বলে ১২ চারের সাহায্যে ৯৯ রানের লড়াকু ইনিংস খেলেন। এই প্রথম নিজের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে নার্ভাস নাইনটিজের শিকার হন ওয়ার্নার। তার বিদায়ের পর প্যাট কামিন্সের ৩৫ রানও ম্যাচ জয়ে যথেস্ট হয়নি। শেষ পর্যন্ত সফরকারিদের হার দেখতে হয় ৪ রানে।

এ হারের ফলে ২০১০ সালের পর এই প্রথম অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়ানডেতে সিরিজ জিতল তারা। পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ স্বাগতিকরা এগিয়ে ৩-১ ব্যবধানে।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি লঙ্কানদের। দলীয় ৩৪ রানের মধ্যে টপ অর্ডারের তিন ব্যাটার নিরোসান ডিকভেলা, পাথুম নিশাঙ্কা ও কুসাল মেন্ডিসের উইকেট হারায় শ্রীলঙ্কা। এরপর ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার সঙ্গে ১০১ রানের জুটি গড়েন আসালঙ্কা। সিলভা ৬০ রানে ফিরলেও ওয়ানডে ক্যারিয়ারে প্রথম শতক তুলে ১১০ রানে থামেন আসালঙ্কা। আসালঙ্কা যখন বিদায় নেন তখন শ্রীলঙ্কার দলীয় স্কোর ৮ উইকেট হারিয়ে ২৫৬ রান। শেষ পর্যন্ত পুরো ৫০ ওভার ব্যাট করতে পারেনি লঙ্কানরা। ৪৯ ওভারে শ্রীলঙ্কা অল আউট হয় ২৫৮ রানে। 

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে মিচেল মার্শ, প্যাট কামিন্স ও ম্যাথু কুনম্যান প্রত্যেকে ২টি করে এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েল একটি উইকেট লাভ করেন। 

লঙ্কানদের দেয়া টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই অ্যারন ফিঞ্চের উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। এদিন কোন অজি ব্যাটারই তেমন সুবিধা করতে পারেননি। তবে ব্যতিক্রম ডেভিড ওয়ার্নার। দলকে জয়ের পথে রেখে আউট হন ৯৯ রানে। শেষ ওভারে জয়ের জন্য ১৯ রান প্রয়োজন ছিল অজিদের। তবে ম্যাথু কুনম্যান ১৫ রান তুলে শেষ বলে আউট হয়ে ফেরেন। শুক্রবার পঞ্চম ওয়ানডে।

শ্রীলঙ্কার হয়ে চামিকা করুণারত্নে, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ও জেফরি ভ্যানডারসে প্রত্যেকে ২টি করে এবং মাহেশ থাকসেনা, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, দুনিথ ওয়েল্লালাগে ও দাসুন শানাকা প্রত্যেকে একটি করে উইকেট লাভ করেন। 

  যশোরের আলো
  যশোরের আলো
এই বিভাগের আরো খবর