মঙ্গলবার   ০৯ আগস্ট ২০২২   শ্রাবণ ২৪ ১৪২৯   ১০ মুহররম ১৪৪৪

  যশোরের আলো
সর্বশেষ:
যশোরের পুলিশ সুপারসহ ৪ পুলিশ কর্মকর্তাকে পুরস্কৃত বাংলাদেশকে ৩০ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক বিভিন্ন রুটে ভাড়ার নতুন তালিকা প্রকাশ করলো বিআরটিএ ঝিনাইদহে কৃষকের মাঝে কৃষি-পল্লী ঋণ বিতরণ দেশীয় কিটে ২৫০ টাকায় করা যাবে করোনা পরীক্ষা গম-ভুট্টা চাষিরা কম সুদে পাবেন ১ হাজার কোটি টাকার ঋণ
৫৪৩

আরাপপুরে নদীভাঙ্গনে বিলীনের পথে রাস্তা!

নিজস্ব প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৩ মে ২০১৯  

রাস্তা ভেঙে নদীতে বিলীন হওয়ার কারণে ঝিনাইদহ পৌরসভার আরাপপুর ধোপাপাড়ার দুঃখি মাহমুদ সড়কে হাজারো মানুষ চলাচল করতে পারছে না। ভাঙতে ভাঙতে দশ ফুট চওড়া রাস্তাটি এখন দেড় ফুটে এসেছে। 

এলাকাবাসী জানান, গত চার বছর ধরে রাস্তাটি ভাঙতে ভাঙতে স্থানীয় নবগঙ্গা নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। কিন্তু বিষয়টি নজরে আসেনি পৌর কর্তৃপক্ষের। দিনের বেলায় সাধারণ মানুষ বাধ্য হয়েই খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলাচল করলেও রাতের বেলায় ওই রাস্তা দিয়ে চলাচল করা অসাধ্য। কোন যানবাহন চলার প্রশ্নতো একেবারেই অবান্তর। 

এলাকার মোয়াজ্জেম হোসেন তার ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন রাস্তাটির দুর্দশা তুলে ধরে। তিনি উল্লেখ করেছেন, ঝিনাইদহ শহরের ক্যাসেল ব্রিজের ডানদিক থেকে রাস্তাটি নবগঙ্গা নদীর তীর ঘেষে লুলু মেকানিকের বাসার পাশ দিয়ে ঝিনাইদহ-১ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল হাইয়ের বাসার সামনে গিয়ে উঠেছে। গুরুত্বের দিক থেকে রাস্তাটি ভিআইপি সড়ক বলা যেতে পারে। এই সড়কে সাবেক আরেকজন সংসদ সদস্যের বাড়িও রয়েছে। 

মহল্লার কয়েকজন জানালেন, ৩/৪ বছর আগে ওই রাস্তায় পানি নিষ্কাশনের জন্য একটি পাইপ বসানো হলে সেটি আর মেরামত না করায় পাইপের গোড়া ভাঙতে থাকে। এখন পুরো রাস্তাই নদী গিলে খেয়েছে। অবশিষ্ট আছে মাত্র দেড় ফুটের মত চওড়া রাস্তা। সামনের বর্ষায় অবশিষ্ট রাস্তাটুকুও ভেঙে নদীতে মিশে যাবে বলে আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী। 

এ বিষয়ে এলাকার ওয়ার্ড কাউন্সিলর বশির উদ্দীন বলেন, রাস্তাটি নির্মাণের জন্য পৌর কর্তৃপক্ষ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। আশা করা যাচ্ছে আগামীতে রাস্তাটি প্রকল্পভুক্ত হলে নির্মাণকাজ শুরু করা হবে।
 

  যশোরের আলো
  যশোরের আলো
এই বিভাগের আরো খবর