সোমবার   ০৮ আগস্ট ২০২২   শ্রাবণ ২৩ ১৪২৯   ১০ মুহররম ১৪৪৪

  যশোরের আলো
সর্বশেষ:
বর্তমান বিশ্ব পরিস্থিতিতে যে কারণে তেলের দাম বৃদ্ধি যৌক্তিক খুলনা-যশোর অঞ্চলে ১৭১ রেলগেটের ৯৮টি অরক্ষিত যশোরে এক মাসে হারানো ৪৯টি মোবাইল উদ্ধার বেনাপোলে পণ্য আমদানিতে অভাবনীয় গতি বাস-মিনিবাসের ভাড়া পুনঃনির্ধারণ করে প্রজ্ঞাপন জারি
৭৩

চৌগাছায় প্রেমিকের ধোঁকায় পড়ে বিষপান, সেই স্কুলছাত্রীর মৃত্যু

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১ জুন ২০২২  

যশোরের চৌগাছায় একসঙ্গে বিষপানের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রেমিকার বিষপানের পর প্রেমিক পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন স্কুলছাত্রী রাজিয়া সুলতানা মিম (১৪) মারা গেছে। বৃহস্পতিবার (৯ জুন) দিবাগত রাত ১২টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। 

শুক্রবার (১০ জুন) নিহত রাজিয়া সুলতানা মিমের চাচা তৈয়বুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  

রাজিয়া সুলতানা মিম উপজেলার জগদীশপুর গ্রামের আনোয়ার হোসেনের মেয়ে। সে মির্জাপুর জগদীশপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। এ ঘটনায় অভিযুক্ত প্রেমিক টগর (৩০) চৌগাছা উপজেলার জগদীশপুর গ্রামের বাসিন্দা।

এর আগে গত বুধবার (৮ জুন) সকালে পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী একসঙ্গে আত্মহত্যা করার সিদ্ধান্ত নেয় মিম ও টগর। তবে সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মিম বিষপান করার পরপরই পালিয়ে যান টগর। এ সময় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক যশোর জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে অবস্থার অবননি হলে মেডিসিন ওয়ার্ডের দায়িত্বরত চিকিৎসক মিমকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। 

ভুক্তভোগীর পরিবার জানায়, মিমের সঙ্গে টগর নামে এক যুবকের প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। কয়েক দিন আগে তারা বাড়িতে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। তবে তাদের বিয়ে মেনে নিতে রাজি হয়নি কোনোপক্ষই। বুধবার (৮ জুন) সকাল ১০টায় টগর মিমকে স্কুলের পেছনের মাঠে ডেকে নিয়ে জানায়, ‘তারা দুজন একসঙ্গে বিষপান করে আত্মহত্যা করবে’। টগর নিজে বিষ কিনে আনে। মিমের হাতে বিষ তুলে দিলে সে তা পান করে অসুস্থ হয়ে পড়ে। এ সময় টগর পালিয়ে যায়। 

পরে স্কুলের শিক্ষকরা মিমকে উদ্ধার করে প্রথমে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে মেয়েটিকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে অবস্থার অবননি হলে মেডিসিন ওয়ার্ডের দায়িত্বরত চিকিৎসক মিমকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়ে মিম। 

নিহত মিমের চাচা তৈয়বুর রহমান জানান, গতকাল রাত ১২টার দিকে মিম মারা যায়। ময়নাতদন্ত শেষে দুপুরের পর তার মরদেহ গ্রামের বাড়ি ঝিনাইদহে আনা হয়েছে। সেখানে তার দাফন হবে।

এ বিষয়ে চৌগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম সবুজ বলেন, এখন পর্যন্ত কোনো পক্ষ অভিযোগ দেয়নি। মেয়েটিকে ঝিনাইদহে দাফন করা হবে।

  যশোরের আলো
  যশোরের আলো
এই বিভাগের আরো খবর