রোববার   ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩   মাঘ ২২ ১৪২৯   ১৪ রজব ১৪৪৪

  যশোরের আলো
সর্বশেষ:
ফেব্রুয়ারি ঘিরে গদখালীর ৫০ কোটি টাকার ফুল বিক্রির লক্ষ্য ফুল চাষে রঙিন ঝিকরগাছার সাজেদার জীবন ঢাকা থেকে যশোর পর্যন্ত রেলপথ নির্মাণের অগ্রগতি ৭০ শতাংশ যশোরে ক্ষমা পেলেন আ’লীগ-যুবলীগের বহিষ্কৃত ৬ নেতা যশোরের ৪০০ টন বাঁধাকপি যাচ্ছে মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুর-তাইওয়ানে দেশের বাজারে কমলো সোনার দাম
৪৭

চীন ও সৌদির মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ সমঝোতা স্মারক-বিনিয়োগ চুক্তি সই

প্রকাশিত: ৯ ডিসেম্বর ২০২২  

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই সৌদি আরব সফর করছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। গুরুত্বপূর্ণ এ সফরের ফলে সৌদি আরবের সঙ্গে সম্পর্ক আরো গভীর হচ্ছে চীনের।

বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) দেশ দুটির মধ্যে বেশ কয়েকটি বিষয়ে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। টেক জায়ান্ট হুয়াওয়ে নিয়েও চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় চীন ও সৌদি আরবের মধ্যে। এটি উপসাগরীয় অঞ্চলে মার্কিন নিরাপত্তার উদ্বেগ আরও বাড়িয়ে দিলো।

চীন ও সৌদি আরবের মধ্যে বিনিয়োগসহ বিভিন্ন বিষয়ে ২৯ দশমিক ২৬ বিলিয়ন ডলারের দ্বিপক্ষীয় চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার কথা।

গত বুধবার রিয়াদে পৌঁছান চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। এ সময় নানা আড়ম্বরের মধ্য দিয়ে তাকে অভিনন্দন জানায় সৌদি আরব। প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান তাকে স্বাগত জানান। সৌদি রয়্যাল গার্ডের সদস্যরা আরবীয় ঘোড়ায় চড়ে এবং চীনা ও সৌদি পতাকা বহন করে শি জিনপিংয়ের গাড়িটি রাজ প্রাসাদে নিয়ে যায় এবং পরে তিনি ভোজসভায় অংশ নেন। এটি করোনা মহামারির পর শি জিনপিংয়ের তৃতীয় বিদেশ সফর। একই সঙ্গে ২০১৬ সালের পর সৌদি আরব সফরে গেলেন তিনি।

সফরের দ্বিতীয় দিন সৌদি প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে বৈঠক করেন শি জিনপিং। পশ্চিমা বলয়ের বাইরে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এবার নতুন বৈশ্বিক অংশীদারত্ব গড়ে তোলার প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মধ্যপ্রাচ্যে চীনের ক্রমবর্ধমান প্রভাব ও রিয়াদের সঙ্গে সম্পর্কের মাত্রা গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। অবশ্য এর পেছনে বিশেষ কারণও রয়েছে। হুয়াওয়ে মার্কিন উদ্বেগ সত্ত্বেও বেশিরভাগ উপসাগরীয় রাজ্যে ৫-জি নেটওয়ার্ক তৈরিতে অংশ নিয়েছে।

প্রিন্স সালমানকে, গত জুলাই মাসে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সৌদি সফরের সময় যে রকমটা দেখা গিয়েছিল চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সফরের সময় তার ভিন্নতা স্পষ্ট বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে জানা যাচ্ছে।

এ ছাড়া মধ্যপ্রাচ্যের বেশ কয়েকটি দেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে বৈঠক করার কথা রয়েছে চীনের প্রেসিডেন্টের। শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) ছয় সদস্যবিশিষ্ট গালফ কো-অপারেশন কাউন্সিলে (জিসিসি) রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে আলাদা বৈঠক করার কথা শি জিনপিংয়ের।

সম্মেলনের ফাঁকে মিসরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল সিসি, তিউনিসিয়ার প্রেসিডেন্ট কায়েস সাইদ, ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস, সুদানের নেতা আবদেল ফাত্তাহ আল-বুরহানের সঙ্গেও চীনের প্রেসিডেন্টের বৈঠক করবেন বলে জানা যাচ্ছে।

অন্যদিকে, ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শিয়া আল-সুদানি, মরক্কোর প্রধানমন্ত্রী আজিজ আখনাউচ ও লেবাননের প্রধানমন্ত্রী নাজিব মিকাতিও জিসিসি সম্মেলনে যোগ দেবেন।

চীনের গ্লোবাল টাইমসের সম্পাদকীয়তে সম্প্রতি বলা হয়, চীন- আরব শীর্ষ সম্মেলনের কারণে চীনের সঙ্গে আরব দেশগুলোর সম্পর্ক ইতিহাসের মাইলস্টোন হয়ে দাঁড়াবে। এতে আরও বলা হয়, আরব বসন্তের ‘গুরুতর প্রভাব’ এর পরে, এই অঞ্চলে রাজনৈতিক অস্থিরতা এড়াতে এবং স্থিতিশীল প্রবৃদ্ধি অর্জনের জন্য চীনের অভিজ্ঞতার প্রতি গভীর আগ্রহ মধ্যপ্রাচ্যের।

সূত্র: রয়টার্স

  যশোরের আলো
  যশোরের আলো
এই বিভাগের আরো খবর